২০০ কোটি টাকা রপ্তানি আদেশ

এবার ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় প্রায় ২০০ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ মিলেছে; যা গতবারের মেলার তুলনায় ৩৫ কোটি টাকা বেশি বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি এমপি। তিনি বলেন, ‘এবার বিক্রি ও রপ্তানি আদেশ ভালো হয়েছে। দেশি পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। ক্রেতারা আমাদের পণ্যে আকৃষ্ট হচ্ছেন। আগামীতে আমদানি কমে যাবে।’ গতকাল রাজধানীর শেরেবাংলানগর প্রাঙ্গণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) যৌথভাবে আয়োজিত ডিআইটিএফের সমাপনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এতে আরও বক্তব্য দেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বাণিজ্য সচিবের দায়িত্বপ্রাপ্ত এস এম রেজওয়ান হোসেন, ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য প্রমুখ। অনুষ্ঠানে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘গতবার আমাদের রপ্তানি হয়েছিল ৪১ বিলিয়ন ডলার। এবার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৪৫ বিলিয়ন ডলার। ২০৪১ সালে আমাদের রপ্তানি হবে ৬০ বিলিয়ন ডলার। সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ভালো করছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সবাইকে সঙ্গে নিয়েই সামনে এগিয়ে যেতে চাই। ব্যবসার ক্ষেত্রে আমাদের সমস্যাগুলো একসঙ্গে বসে সুন্দরভাবে সমাধান করতে সরকার আন্তরিক।’ ইপিবি জানিয়েছে, দেশের বাণিজ্য বৃদ্ধি ও বৈদেশিক বাণিজ্য সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে এবারের বাণিজ্য মেলা ছিল সার্থক আয়োজন। মাসব্যাপী এ মেলায় দর্শনার্থী-ক্রেতা আগমনের পাশাপাশি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আগ্রহী ক্রেতা আমদানিকারক মেলা পরিদর্শন করেন। এ ছাড়া বেশ কয়েকটি বিদেশি ডেলিগেশনও সরেজমিন মেলা পরিদর্শন করেছেন। ইপিবি জানিয়েছে, গত বছর ২৩তম মেলায় ২০ মিলিয়ন ডলার বা ১৬৫ কোটি ৯৬ লাখ টাকার রপ্তানি আদেশ পেয়েছিল বাংলাদেশি কোম্পানিগুলো। তার আগের বছর মেলায় ২৪৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকা বা ৩০ দশমিক ৪৩ মিলিয়ন ডলারের স্পট অর্ডার এসেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

সংস্করণ