খাদ্যে বিষক্রিয়া প্রতিরোধ করবেন যেভাবে

শীত মানেই উৎসব। এই সময় বিয়ে, বেড়ানো কিংবা বনভোজনসহ নানা ধরনের অনুষ্ঠান লেগেই থাকে।ফলে খাওয়াদাওয়ার অনিয়ম বাড়ে। সেই সঙ্গে খাদ্যে বিষক্রিয়ারও সম্ভাবনা দেখা দেয়। অবশ্য শীতে এই ধরনের অসুখের প্রবণতা বাড়লেও সারা বছরই খাদ্যে বিষক্রিয়ার আশঙ্কা থাকে।

খাদ্যে বিষক্রিয়া হলে হজমে নানা সমস্যা যেমন- বমি, জ্বর ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দেয়। এছাড়া অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস, অপরিষ্কার পানি, বিশেষ কোনও খাবার সহ্য না হলে কিংবা ব্যাকটেরিয়া-ছত্রাকে আক্রান্ত যেকোন খারাপ খাবার থেকে খাদ্যে বিষক্রিয়া ছড়াতে পারে। এ ধরনের সমস্যা অবহেলা করলে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। এ কারণে খাদ্যে বিষক্রিয়ার শিকার হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া জরুরী।

এছাড়া বিশেষ কিছু খাবার যদি নিয়মিত খাওয়া যায় তাহলে খাদ্যে বিষক্রিয়া সহজেই প্রতিরোধ করা যায়।যেমন-

প্রতি দিন আদা কুচির সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে হজমশক্তি বাড়ে।সেই সঙ্গে পেটে ব্যথা, বমিভাব ইত্যাদি কমাতেও এটি উপকারী।

হজমের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে জিরা। দিনে এক বার খানিকটা গোটা জিরা অল্প লবণ মাখিয়ে খেলে ভাল ফল পাবেন।

খাদ্যে বিষক্রিয়া প্রতিরোধ করতে দারুন উপকারী ফল হচ্ছে কলা। এতে থাকা পটাশিয়াম যেকোন অসুখ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

ডায়রিয়ায় উপস্থিত ব্যাকটেরিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ করতে আপেল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়া অ্যাসিডিটি কমাতে ও হজমের যে কোনও সমস্যা দূর করতে এই ফল কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

শরীরের টক্সিন দূর করতে ও পরিপাক পদ্ধতি স্বাভাবিক রাখতে প্রতিদিন গরম পানির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে খান। এটি হজমের বিভিন্ন সমস্যা দূর হওয়ার করার পাশাপাশি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

সংস্করণ