দেশে একদলীয় স্বৈরতান্ত্রিক ব্যবস্থার উত্থান ঘটেছে

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেছেন, গত ৩০ ডিসেম্বর নজিরবিহীন জালিয়াতি আর ভোট ডাকাতির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে ন্যূনতম রাজনৈতিক ভারসাম্য ধ্বংস করে একদলীয় স্বৈরতান্ত্রিক ব্যবস্থার উত্থান ঘটেছে। কয়েক দশকের দ্বি-দলীয় ব্যবস্থারও অবসান ঘটানো হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের বর্তমান শাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে ভোট ডাকাতির সংসদ বাতিল, ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা, নিরপেক্ষ-তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে দেশের সব গণতান্ত্রিক ও দেশপ্রেমিক শক্তির ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন জোরদার করতে হবে। জনগণকে এ আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সভার শুরুতে গীতিকার, সুরকার, মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয় এবং ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়।

সাইফুল হক আরও বলেন, রাষ্ট্রের আইন, নির্বাহী ও বিচার বিভাগের মধ্যকার ভারসাম্যকেও পুরোপুরি নষ্ট করে ব্যক্তি কর্তৃত্বের রাষ্ট্রীয় ফ্যাসিবাদকে আরও সংহত ও জোরদার করা হয়েছে। ভোটের মাধ্যমে নিয়মতান্ত্রিক ধারায় সরকার পরিবর্তন ও ভোটারদের পছন্দের দলকে বেছে নেবার গণতান্ত্রিক সুযোগকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই পরিস্থিতি দেশ ও জনগণের জন্য গুরুতর অশনিসংকেত ও বিপজ্জনক। এটা মুক্তিযুদ্ধের গণতান্ত্রিক চেতনার ১৮০ ডিগ্রি উল্টা দিকে যাত্রা। দেশের কোনো সচেতন ও বিবেকবান মানুষ এই পরিস্থিতি মেনে নিতে পারে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

সংস্করণ