ডোপ নেওয়ায় নিষিদ্ধ শেহজাদ

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড দেশটির ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদকে চার মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। ডোপ টেস্টে পজেটিভ হওয়ায় তাকে এ শাস্তি দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। আগামী ১০ নভেম্বর পর্যন্ত তিনি কোন ম্যাচ খেলতে পারবেন না। পাকিস্তানের এই ব্যাটসম্যান ক্রিকেট বোর্ডের দেওয়া শাস্তি মেনে নিয়েছেন।

তবে শেহজাদের নিষেধাজ্ঞার সময় ধরা হয়েছে ১০ জুলাই থেকে। সেখান থেকে চার মাস ধরলে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। অন্যভাবে হিসেব করলে শেহজাদকে নিষেধাজ্ঞায় থাকতে হচ্ছে মাস খানেক। শেহজাদের ডোপ টেস্টের জন্য  নমুনার রিপোর্ট পাওয়ার পরের সময় ধরে তাকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

তবে পিসিবি জানিয়েছে, শেহজাদ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নিয়ম ভেঙেছে। ২৬ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের খারাপ কোন উদ্দেশ্য ছিল না। সে ক্রিকেটের সঙ্গে প্রত্যারণা করেনি বা নিজের পারফরমেন্স বাড়ানোর জন্য বল বর্ধক কোন ওষুধ নেয়নি।

পাকিস্তানের ঘরোয়া ওয়ানডে লিগ পাকিস্তান কাপের আগে তাদের ডোপ টেস্টের নমুনা গ্রহণ করা হয়। শেহজাদের নমুনা নেওয়া হয় গত ৩ মে’তে। এরপর তার নমুনা পরীক্ষা করে ১১ জুন তিনি ডোপ নিয়েছেন বলে প্রমাণ পাওয়া যায়। স্কটল্যান্ডে থাকা পাকিস্তান ওপেনার এরপর ১২ এবং ১৩ জুন স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০ ম্যাচে অংশ নেন।  কিন্তু অস্ট্রেলিয়া এবং জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে বাদ পড়েন তিনি।

এরপর জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত চার মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলো তাকে। শেহজাদ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের দেওয়া শাস্তি মেনে নিয়ে এক টুইট করেছেন। তাতে তিনি লিখেছেন, নিষেধাজ্ঞার পর যতদ্রুত সম্ভব আমি ক্রিকেটে ফিরবো। পাকিস্তান বোর্ডকে না জানিয়ে তিনি ওষুধ সেবন করেছিলেন। একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার হিসেবে তার এটা করা ঠিক হয়নি বলেও মনে করেছেন তিনি।

সূত্র : সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

সংস্করণ