অপ্রকাশিত ঘৃণা

প্রতিবাদ আমার অহঙ্কার
সহ্য করিনা, অন্যায়, অনাচার
অবহেলা নিয়ে জম্মেছি,
ঘৃণার সাগরে আমি ভাসমান।

বিদ্রোহ আমার অলঙ্কার
মায়ের দুগ্ধ বঞ্চিত সন্তান আমি
লাঞ্চনার অন্ধকারে পিতৃ পরিচয়,
সুখ খুঁজিনি বিশ্বচরাচরে
হারিয়ে গেছে যে কখন
তাকে কোনদিন খুঁজিনি।

অনাদরে হয়েছি লালিত, পালিত
রাস্তার ফুটপাতে ঘুমিয়েছি,
পরিচয়হীন মানুষ আমি
বসতি গড়ার জন্য নালিশ করিনি
সুপারিশ নেই ভালভাবে বাঁচার
মানুষ বাঁচুক স্বপরিচয়ে, এ আমার আবদার।

অবজ্ঞার স্কুলে আমার শিক্ষা
কুশিক্ষার অভিশাপ নিয়ে চলছি
দারিদ্রতা আমাকে বাঁচতে শিখিয়েছে
সুযোগ দিয়েছে মানুষ চেনার,
ঘৃণাবোধ থেকে জম্ম পরিচয়
দায়িত্ব নেয়নি কেউ মানুষ বানাবার।

আমি বিচারক আমার আদালতে
রুখে দিতে চাই অন্যায়, অবিচার,
রক্ত চাইনা, ঘৃণা করি রক্তপাত
মানুষের বুকে যারা লাথি মারে
রুজী করে অভুক্তের মুখের অন্ন কেড়ে
আমি তাদের বিচার চাই, বিচার হোক আদালতে।

রাস্তার পরে সন্তান ছূড়ে যে মা সুখের সমাজ গড়ে
আমি সেই মা”কে ঘৃণা করি
সন্তান পরিচয়ে যে বাবা লজ্জিত
আমি ঐ বাবাকে অস্বীকার করি, অশ্রদ্ধা করি,
মানুষের কান্নায় বিচলিত হই
অবিচারের তক্তে লাথি মারি, এড়িয়ে যাই তাদের,
সত্য সমাগত, অসত্য বিতাড়িত যদি তাই হয়
তবে চাই সত্যিকারের সম্মান, পরিচয়।

কবি:মাহমুদ শাহ (শাহ আলম)

One thought on “অপ্রকাশিত ঘৃণা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Pin It on Pinterest

সংস্করণ